দায়িত্বে অবহেলা, এমপিও বাতিল হচ্ছে তিন শিক্ষকের

শিক্ষা মন্ত্রণালয় (ছবি : সংগৃহীত)
শিক্ষা মন্ত্রণালয় (ছবি : সংগৃহীত)

২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষা চলাকালে গাজীপুর শ্রীপুর উপজেলার মাওনা পরীক্ষা কেন্দ্রে অবহেলার অভিযোগে তিন শিক্ষকের এমপিও বন্ধের উদ্দেশ্যে চিঠি দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার (৯ অক্টোবর) মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে এই চিঠি দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, ২০১৮  খ্রিস্টাব্দের এসএসসি পরীক্ষা চলাকালে গাজীপুর শ্রীপুর উপজেলার মাওনা পরীক্ষা কেন্দ্র কক্ষ পরিদর্শকের দায়িত্ব পালনে অবহেলা করেছেন ৩ শিক্ষক। দায়িত্বে অবহেলায় তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

চিঠিতে আরো বলা হয়, দায়িত্ব পালনে অবহেলা করায় বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা ২০১৮ এর ১৮(১) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী তাদের বেতনভাতার সরকারি অংশ (এমপিও) স্থগিত করে, কেন তাদের এমপিও স্থায়ীভাবে বন্ধ করা হবে না সে বিষয়ে কারণ দর্শানোর জন্য অধিদপ্তরকে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, অভিযুক্ত ওই তিন শিক্ষক হলেন- গাজীপুর শ্রীপুর উপজেলার বারতোপা আফসার উদ্দিন খান উচ্চ বিদ্যালয়ের ধর্ম শিক্ষক খন্দকার মো. ইব্রাহিম, সিংগারদিঘী উচ্চ বিদ্যালয়ের বাংলার সহকারী শিক্ষক খায়রুল আলম সবুজ এবং একই বিদ্যালয়ের বিজ্ঞানের সহকারী শিক্ষক সোহাগ আল মামুন।

Advertisements

হঠাৎ ব্লাড প্রেশার কমে গেলে যা করবেন

হঠাৎ ব্লাড প্রেশার কমে গেলে মেনে চলুন কিছু বিষয় (ছবি : প্রতীকী)
হঠাৎ ব্লাড প্রেশার কমে গেলে মেনে চলুন কিছু বিষয় (ছবি : প্রতীকী)

একজন সুস্থ মানুষের স্বাভাবিক রক্তচাপ হয় ১২০/৮০। রক্তচাপ যদি এর চেয়ে কম হয়, অর্থাৎ ৯০/৬০ বা এর আশেপাশে হলে তাকে ‘লো ব্লাড প্রেশার’ ধরা হয়। প্রেশার অতিরিক্ত কমে গেলে মস্তিস্ক, কিডনি ও হৃদপিণ্ডে ঠিকমতো রক্ত চলাচল করতে পারে না। এর ফলাফলও হয় মারাত্মক।

লো প্রেশারের কারণ-

অতিরিক্ত পরিশ্রম, দুশ্চিন্তা, ভয়, স্নায়ুর দুর্বলতা- ইত্যাদি কারণে লো প্রেশার হয়ে থাকে।

লো প্রেশারের লক্ষণ-

১। প্রেশার লো হলে ক্লান্তি, অবসাদ দেখা দেয়।

২। বমি বমি ভাব ও বুক ধড়ফড় করে।

৩। দৃষ্টি ঝাপসা লাগে, অনেক সময় রোগী অজ্ঞান হয়ে যায়।

৪। স্বাভাবিক শ্বাস-প্রশ্বাস নিতে কষ্ট হয়।

৫। অতিরিক্ত ঘাম হয় এবং ডায়রেয়া হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

৬। গর্ভবতী নারীদের গর্ভের প্রথম ৬ মাস হরমোনের প্রভাবে লো প্রেসার হতে পারে।

হঠাৎ প্রেশার কমে গেলে যা করবেন-

১। এক গ্লাস পানিতে ২ চা চামচ চিনি ও আধা চা চামচ লবণ মিশিয়ে নিন। লবণে থাকা সোডিয়াম রক্তচাপ বাড়ায়। তবে ডায়াবেটিস থাকলে চিনি এড়িয়ে চলুন।

২। ব্লাড প্রেশার বাড়াতে দারুণ কাজ করে কফি। স্ট্রং কফি, হট চকোলেট এবং ক্যাফেইন রয়েছে এমন পানীয় খেলে তাড়াতাড়ি ব্লাড প্রেশার বাড়ে। যারা দীর্ঘদিন লো প্রেশার সমস্যায় ভুগছেন তারা সকালের নাস্তা শেষে এক কাপ কফি খেতে পারেন।

৩। বিটের রস হাই ও লো প্রেসার দুইয়ের জন্যই সমান উপকারী। এটি রক্তচাপ স্বাভাবিক রাখতে সাহায্য করে। প্রতি সপ্তাহে বিটের রস খেলে প্রেশার সঠিক মাপে থাকবে।

৪। লো প্রেশার সমস্যায় থাকলে ৫টি কাঠবাদাম ও ১৫ থেকে ২০টি চিনাবাদাম খেতে পারেন।

৫। পুদিনা পাতায় থাকা ভিটামিন ‘সি’, ম্যাগনেশিয়াম, পটাশিয়াম ও প্যান্টোথেনিক ইত্যাদি উপাদান দ্রুত ব্লাড প্রেসার বাড়ায় এবং মানসিক অবসাদ দূর করে।

৬। অতিরিক্ত কাজের চাপ, রোদে ঘোরাঘুরি, মানসিক অবসাদ থেকে দূরে থাকুন সবসময়। বিস্তারিত জানতে……

শেরপুরে জাল টাকা ও ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার ১

ফেনসিডিল ও জাল টাকাসহ আটক আব্দুল কুদ্দুস মাখন
ফেনসিডিল ও জাল টাকাসহ আটক আব্দুল কুদ্দুস মাখন

শেরপুরের নকলা উপজেলায় ১০ বোতল ফেনসিডিল ও ১৫ হাজার ৫শ জাল টাকাসহ আব্দুল কুদ্দুস মাখন নামে একজনকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। শনিবার (৬ অক্টোবর) রাতে শেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আমিনুল ইসলাম সাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানা যায়।মাখন নকলা উপজেলার নারায়ণখোলা গ্রামের মো. আব্দুল হাইয়ের ছেলে।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি জানান, চলতি বছরের ১৪ আগস্ট (মঙ্গলবার) শেরপুর সদর থানায় দায়েরকৃত একটি মামলার (মামলা নং-২৩) তদন্তকালে জানা যায়, পলাতক সন্দেহভাজন আসামি ঢাকার মোহাম্মদপুরে অবস্থান করছে। সেই তথ্যের ভিত্তিতে শেরপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি টিম অভিযান পরিচালনা করে তাকে গ্রেফতার করে। পরে তার দেওয়া তথ্যমতে শুক্রবার (৫ অক্টোবর) রাতে নকলা উপজেলার চর বসন্তী এলাকায় অভিযান চালিয়ে মাখনকে গ্রেফতার করেন। এ সময় তার দেখানো মতে ১০ বোতল ফেনসিডিল এবং ১ হাজার টাকার নোট ৬টি এবং ৫শ টাকার নোট ১৯টি মোট ১৫ হাজার জাল টাকা উদ্ধার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে সে স্বীকার করে ফেনসিডিল ও জাল টাকা বিক্রির উদ্দেশ্যে রেখিছিল। এ ব্যাপারে তার বিরুদ্ধে পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে। বিস্তারিত জানতে……

এনজিও’র ঋণ শোধে অনাগত সন্তান বিক্রি

জামালপুর
জামালপুর

সন্তান এখনও মায়ের মুখ দেখেনি, দেখেনি পৃথিবীর আলো। অভাবের সংসারে জন্ম নেওয়ার আগেই বদলে যাওয়ার কথা ছিল অভিভাবকত্ব। মাত্র ৪০ হাজার টাকায় অন্যের ঘরে নিজের পরিচয়ে বেড়ে ওঠার কথা ছিল শিশুটির।

জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলার পশ্চিমপাড়ার অন্তঃসত্ত্বা রাবেয়ার (৩০) জীবনে ঘটেছে এ ঘটনা।

দুটি এনজিও’র কাছ থেকে ঋণ নিয়ে সে ঋণ পরিশোধ করতে পারছিলেন না রাবেয়া। একদিকে অভাব, অন্যদিকে ঋণ পরিশোধের জন্য অতিষ্ঠ রাবেয়া বাধ্য হয়ে সিদ্ধান্ত নেন সন্তানকে বিক্রি করে দেওয়ার।

চার সন্তানের জননী এবং বর্তমানে অন্তঃসত্ত্বা রাবেয়ার স্বামী জাহাঙ্গীর দিনমজুর। অভাবের সংসারে বেশ কিছু সাংসারিক প্রয়োজনে স্থানীয় গ্রামীণ ব্যাংক ও আশা থেকে ৬০ হাজার টাকা ঋণ নেন তারা। সাপ্তাহিক কিস্তিতে এ ঋণ পরিশোধের কথা ছিল। কিন্তু ঋণের টাকা সময় মত শোধ করতে না পারায় ঋণের বোঝা বাড়তে থাকে। এ অবস্থাতে দিনমজুর স্বামী রাবেয়া আর সন্তানদের রেখে পালিয়ে যায়।

এ দিকে বৃদ্ধি পেতে থাকা ঋণের বোঝা শোধ করার আর কোনো উপায় না পেয়ে অনাগত সন্তানকে ৪০ হাজার টাকায় বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন তিনি। সন্তানের ক্রেতার কাছ থেকে বর্তমানে সংসার চালানোর জন্য ৫ হাজার টাকা অগ্রিম নেন। অবশিষ্ট ৩৫ হাজার টাকা সন্তান প্রসব হওয়ার পর তার পাওয়ার কথা।

সন্তান বিক্রির এ খবর শুনে তাৎক্ষণিকভাবে শুক্রবার (৫ অক্টোবর) রাবেয়ার বাড়িতে যান বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার দেওয়ান মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম।

নির্বাহী অফিসার রাবেয়ার হাতে ১৫ হাজার টাকা তুলে দেন। সে সময় সেখানে উপস্থিত উপজেলা মহিলা বিষয়ক সুপারভাইজার রাবেয়াকে মাতৃত্বভাতা বাবদ ২০ হাজার টাকা সহায়তা দেন।

ইউএনও’র কাছ থেকে নগদ টাকা সাহায্য পেয়ে গর্ভের অনাগত সন্তান বিক্রির জন্য নেওয়া অগ্রিম ৫ হাজার টাকা রাবেয়া ফেরত দেন। এছাড়াও ইউএনও রাবেয়ার প্রতি মাসে ৩০ কেজি খাদ্য সহায়তা, চিকিৎসা সেবা ও ঋণ পরিশোধের জন্য ভিজিডি কার্ডের মাধ্যমে সার্বিক দায়িত্ব নেন।

সবার সহযোগিতায় শেষ পর্যন্ত রাবেয়াকে হারাতে হয়নি তার অনাগত সন্তানকে। এ ব্যাপারে রাবেয়া বলেন, ‘উপজেলা প্রশাসনের সহায়তায় আমার পেটের সন্তান রক্ষা পেয়েছে।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দেওয়ান মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম বলেন, সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে মানবিক কারণেই রাবেয়ার পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছি। বিস্তারিত জানতে……

কঙ্গোতে তেলবাহী ট্যাংকার বিস্ফোরণে ৬০ জন নিহত

আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে অগ্নি নির্বাপক দলের সদস্যরা। ছবি : রয়টার্স
আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছে অগ্নি নির্বাপক দলের সদস্যরা। ছবি : রয়টার্স

আফ্রিকা মহাদেশের গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র কঙ্গোর পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর কিসান্তুর নিকটে হাইওয়েতে একটি গাড়ির সঙ্গে তেলবাহী ট্যাঙ্কারের সংঘর্ষে বিষ্ফোরণে সর্বশেষ সংবাদ পাওয়া পর্যন্ত অন্তত ৬০ জন মারা গিয়েছে এবং মারাত্মকভাবে দগ্ধ হয়েছে শতাধিক। ‘এএফপি’

শনিবার আটলান্টিক মহাসাগরের তীরে দেশটির একমাত্র সমুদ্র বন্দর মাতাদির সঙ্গে রাজধানী কিনশাসার সংযুক্ত মহাসড়কে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানায়,আমরা ৫৩ টি সম্পূর্ণ দগ্ধ দেহ গণনা করেছি। বাজারের স্থানে অনেক মানুষ মারা গেছে

কঙ্গোর কেন্দ্রীয় অঞ্চলের গভর্নর আতৌ মাতাবুয়ানা ‘বিবিসি নিউজ’কে বলেন, ‘৭ জন কিসান্তুর সেন্ট-লুক হাসপাতালে যন্ত্রণাকাতর অবস্থায় মারা যায়। শতাধিক মানুষ দ্বিতীয় ডিগ্রী দগ্ধ হয়েছে।’

সেন্ট-লুক হাসপাতালের একজন চিকিৎসক ‘এএফপিকে’ বলেন যে, ‘আহতদের অনেকেই শরীরের অধিকাংশ স্থান সেকেন্ড ডিগ্রীর দগ্ধ অবস্থায় নিয়ে এসেছে। আমরা তাদের সাহায্য করার চেষ্টা করছি, আমরা তাদের রিহাইড্রেট করার চেষ্টা করছি কিন্তু দুঃখের বিষয় হল এরা তারা যারা মারা যাচ্ছে।দুইটা মোবাইল ক্লিনিক আহতদের উদ্ধারের চেষ্টা করছে।’

জাতিসংঘে’র ওকাপি রেডিও জানিয়েছে, দুর্ঘটনার পর তেল ট্যাংকারে খুব দ্রুত আগুন ধরে যায় এবং সে আগুন দ্রুতই সড়কের আশে-পাশের বাড়ি-ঘরগুলোতেও ছড়িয়ে পড়ে।

২০১০ সালে একটি উল্টানো তেল ট্যাঙ্কার বিস্ফোরিত হয়েছিল এবং দেশের একটি গ্রামে আগুন জ্বলে গিয়ে ২২০ জন মানুষ মারা গিয়েছিল। বিস্তারিত জানতে……

বুয়েটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু

প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু
প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু

বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়েছে আজ।রবিবার (০৭ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে ভর্তির লিখিত পরীক্ষা শুরু হয়েছে। লিখিত পরীক্ষা শেষ হবে বেলা ১২টায়। এরপর দুপুর ২টা থেকে অংকন অংশের পরীক্ষা শুরু হয়ে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এবার প্রথম বর্ষে ১ হাজার ৬০টি আসনের বিপরীতে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ১২ হাজার ১৩৮ জন শিক্ষার্থী। উল্লেখ্য, ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত যে কোনো তথ্য পাওয়া যাবে বুয়েটের ওয়েবসাইটে  আরো জানতে……

কোটার দাবিতে জাবির শিক্ষার্থীদের ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ

ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ
ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ

কোটা বহালের দাবিতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষার্থীদের একাংশ। রবিবার (০৭ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১২ টার দিক থেকে ‘আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান’ এর ব্যানারে মহাসড়কটি অবরোধ করা হয়।

সড়কটি অবরোধের ফলে রাস্তার দু’পাশে আটকে পড়েছে অসংখ্য গাড়ি। এতে করে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে।

এদিকে অবরোধ প্রত্যাহারের জন্য আন্দোলনকারীদের সাথে কথা বলছে পুলিশ প্রশাসন।

বিস্তারিত জানতে……